সর্বশেষ সংবাদ
Home / অপরাধ / হারুন হত্যায় ১৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

হারুন হত্যায় ১৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

চাঁদাবাজিতে বাধা দেয়ায় যুবদল নেতা হারুনুর রশিদ চৌধুরীকে হত্যা করা হয়েছে। ২০১৭ সালের ৩ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম নগরীর কদমতলী এলাকায় নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হারুনকে প্রকাশ্যে গুলি ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ১৮ জনের বিরুদ্ধে রোববার চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। মামলায় ২৫ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সদরঘাট থানার এসআই অলি আহমেদ আদালতের প্রসিকিউশন শাখায় চার্জশিটটি (অভিযোগপত্র) জমা দেন। আসামিরা হলেন- মো. আলমগীর, সাব্বির আলম ওরফে হৃদয়, মো. সালাউদ্দিন ওরফে দুলাল, মো. আলমগীর ওরফে শরবত আলমগীর, মো. কায়সার, মো. মোশারফ হোসেন ওরফে লিটন, তানভীর হোসেন ওরফে শাওন, তৌকির হোসেন ওরফে সেজান, জসিম উদ্দিন, মামুন হোসেন, মো. নুর ইসলাম, মো. সাবের আহমদ, মাসুদ, এহসানুল হক মেহেদি, রেজভী হাসান সানি, শরীফ আহমদ, মো. নুর নবী এবং মুরাদ খান। এর মধ্যে বেশ কয়েকজন কারাগারে আছেন।

এসআই অলি আহমেদ যুগান্তরকে বলেন, কদমতলী স্টেশনে ট্রাক ভাড়া করিয়ে দেয়ার নামে কমিশন বাণিজ্যে বাধা দেয়া, ছিনিয়ে নেয়া ২৮ হাজার টাকা ফিরিয়ে দিতে বাধ্য করা, পুরনো ব্রোকারদের হটিয়ে কদমতলী স্টেশনে নতুন ব্রোকারদের আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টার বাধা দেয়ায় হারুনকে খুন করা হয়। তাকে হত্যার নেপথ্যে ১৮ জনের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। নগরের কদমতলী এলাকার পরিবহন ব্যবসায়ী ও বিএনপি নেতা দস্তগীর চৌধুরীর বড় ভাই আলমগীর চৌধুরীর ছেলে হারুন। এ ঘটনায় হারুনের বড় ভাই হুমায়ন চৌধুরী সদরঘাট থানায় হত্যা মামলা করেন। এ মামলায় আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে আলমগীর ওরফে শরবত আলমগীর। আদালত সূত্র জানায়, এক ট্রাকচালকের কাছ থেকে ২৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়ার পর হারুন চাঁদাবাজদের ডেকে সেই টাকা ফেরত দিতে বাধ্য করেন। এ সময় কালা আলমগীরের সঙ্গে হারুনের কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে কালা আলমগীরকে হারুন ধাক্কা মেরে ফেলে দেয়। এ ঘটনার দিন পর ৩ ডিসেম্বর কদমতলী এলাকায় শাহ বিরিয়ানি হাউজ থেকে হারুনকে টেনে বের করে এনে তার বুকে কালা আলমগীর গুলি করে। কালা আলমগীরের ভাই হৃদয়ও গুলি করে। সন্ত্রাসী সেজান লোহার পাইপ দিয়ে হারুনের মাথায় আঘাত করে এবং পেটে ছুরিকাঘাত করে শরবত আলমগীর। এরপর কয়েক সন্ত্রাসী মিলে তাকে মাটিতে ফেলে কিল-ঘুষি, লাথি মারে। ঘটনাস্থলেই হারুনের মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

জামিনে থাকা ৮ আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় জামিনে থাকা সাবেক তিন আইজিপিসহ আটজনের জামিন ...

Skip to toolbar