সর্বশেষ সংবাদ
Home / আন্তর্জাতিক / ভারতে ‘মি টু’ আন্দোলনের ধাক্কা এবার মন্ত্রী পাড়ায়

ভারতে ‘মি টু’ আন্দোলনের ধাক্কা এবার মন্ত্রী পাড়ায়

ভারতে ‘হ্যাশট্যাগ মি টু’ আন্দোলন এবার নরেন্দ্র মোদির দরজায় আঘাত হেনেছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্য ও সাবেক সম্পাদক এমজে আকবরের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন দেশটির নারী সাংবাদিকরা। দ্য টেলিগ্রাফ পত্রিকার সাবেক সম্পাদক আকবর বর্তমানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী পদে কর্মরত। সোমবার লাইভ মিন্টের সাংবাদিক প্রিয়া রামানি (৪৭) টুইটারে আকবরের (৬৭) বিরুদ্ধে যৌন লাঞ্ছনার অভিযোগ আনেন।

তিনি লিখেন, ‘লেখক হিসেবে তিনি (আকবর) যতটা খ্যাতিমান, যৌন শিকারি হিসেবেও ঠিক ততটাই প্রতিভাবান।’ তার টুইট সামনে আসার পর আকবরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ করেন আরও কয়েকজন সাংবাদিক। হলিউড জগত থেকে ফুঁসে ওঠা এ আন্দোলন এখন বলিউড ও গণমাধ্যমে ঢুকে পড়েছে। খবর টাইমস নাউয়ের।

আকবরের নাম প্রকাশ্যে আসার পর মঙ্গলবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে ট্রিবিউন গোষ্ঠীর সাংবাদিক স্মিতা শর্মা বলেন, ‘ম্যাডাম, অত্যন্ত গুরুতর অভিযোগ উঠেছে আপনার জুনিয়র মন্ত্রী এমজে আকবরের বিরুদ্ধে। আপনি নিজে একজন নারী, এখন এর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা কি নেয়া হবে?’ কিন্তু প্রশ্নের জবাবে একটি শব্দও না-বলে হেঁটে চলে যান সুষমা। এ থেকেই স্পষ্ট এই অভিযোগ সরকারকে অস্বস্তিতে ফেলেছে।

ভোগ ইন্ডিয়ার গত বছর অক্টোবর সংখ্যায় প্রিয়া লিখেছিলেন, ১৯৯৪ সালে এক সম্পাদক তাকে ইন্টারভিউয়ের নাম করে মুম্বাইয়ের একটি হোটেলে ডাকেন। সোমবার রামানি লিখেছেন, সেই সম্পাদকের নাম এমজে আকবর। রামানির ভাষায়, ‘সেদিন বুঝেছিলাম লেখক হিসেবে তিনি যতটা প্রতিভাবান, যৌন শিকারি হিসেবেও ততটাই। তিনি আমাকে ভদকা অফার করলেন। আমি অস্বীকার করেছিলাম। নিজে ভদকা গিলতে শুরু করলেন। তারপর তিনি গুন গুন করে পুরনো হিন্দি গান গাইতে লাগলেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বাস্তবেই বিবিসির সম্পাদক হচ্ছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

বাস্তব জীবনে এবার বিবিসির সম্পাদকের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন হলিউডের খ্যাতিমান অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা ...

Skip to toolbar