সর্বশেষ সংবাদ
Home / বিনোদন / যে ২৯ প্রেক্ষাগৃহে ‘দেবী’র দেখা মিলবে

যে ২৯ প্রেক্ষাগৃহে ‘দেবী’র দেখা মিলবে

আগামী শুক্রবার দেশজুড়ে ২৯টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে নন্দিত কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ‘দেবী’ উপন্যাসের অনুপ্রেরণায় নির্মিত সিনেমা ‘দেবী’। এই সিনেমার মধ্য দিয়ে মিসির আলী প্রথমবারের মতো বড় পর্দায় আসছে।

‘দেবী’ মুক্তির দুদিন আগেই নির্ধারিত হয়েছে প্রেক্ষাগৃহ। সারাদেশের মোট ২৯টি প্রেক্ষাগৃহে অনম বিশ্বাস পরিচালিত সিনেমাটি মুক্তি পাবে। এরমধ্যে রাজধানী ঢাকার ৭টি ও ঢাকার বাইরে ২২টি প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি দেখা যাবে।

ঢাকায় মুক্তি পাবে ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’, ‘ব্লকবাস্টার’, ‘বলাকা’, ‘শ্যামলী’, ‘মধুমিতা’, ‘চিত্রামহল’ ও ‘পুনম’ প্রেক্ষাগৃহে।

এছাড়াও ঢাকার বাইরে সান্তাহারের ‘পূর্বাশা’, কুমিল্লার ‘গ্যারিসন’, নারায়ণগঞ্জের ‘নিউ মেট্রো’, টঙ্গীর ‘চম্পাকলি, জয়দেবপুরের ‘বর্ষা’, সাভারের ‘সেনা’, চট্টগ্রামের ‘আলমাস’ ও ‘সিলভার স্ক্রিন’, বরিশালের ‘অভিরুচি’, সিলেটের ‘নন্দিতা’, খুলনার ‘লিবার্টি, যশোরের ‘মনিহার’, খুলনার ‘শঙ্খ’, দিনাজপুরের ‘মডার্ন’, রংপুরের ‘শাপলা’, পাবনার ‘রূপকথা’, কিশোরগঞ্জের ‘মানসী’, বগুড়ার ‘সোনিয়া’ ও ‘মম ইন’, ময়মনসিংহের ‘ছায়াবানী, নেত্রকোনার ‘হীরামন’ এবং শেরপুরের ‘সত্যবতী’তে মুক্তি পাবে।

‘দেবী’ সিনেমায় মিসির আলী চরিত্রে রয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। এছাড়া রানু চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান ও নীলু হয়েছেন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। সিনেমাটিতে আরও অভিনয় করেছেন অনিমেষ আইচ ও ইরেশ যাকের।

২০০৬ সালে সরকারি অনুদান দেয়া হলে ২০১৭ সালের ১৮ মার্চ এই ছবির কাজ শুরু হয়। সরকারি অনুদানের পাশাপাশি জয়া আহসানের প্রযোজনা সংস্থা ‘সি তে সিনেমা’ ‘দেবী’-তে অর্থ লগ্নি করে।

এই ছবির মাধ্যমে প্রথমবার চলচ্চিত্র প্রযোজনায় এলেন দুই বাংলার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। চলতি মাসের ৩ তারিখ ‘দেবী’ সেন্সর বোর্ড থেকে আনকাট ছাড়পত্র পায়। ‘দেবী’ ছবি দেখে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্যরা।

সেন্সর বোর্ডের দুই সদস্য চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ এবং চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার অনম বিশ্বাস পরিচালিত এই ছবিটি দেখে রীতিমত মুগ্ধ।

১৯ অক্টোবর দেবীর মুক্তি উপলক্ষে সোমবার আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তারা দুজনেই আলাদাভাবে ‘দেবী’ দেখে নিজেদের অভিজ্ঞতা জানিয়েছেন।

সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন আবদুল আজিজসহ ‘দেবী’ ছবির পুরো টিম।

সেন্সর সদস্য ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, ‘দেবী’ খুব ভালো ছবি হয়েছে। এটা পারিবারিক ছবি। অনেক নতুনত্ব আছে। সেন্সরে পুরো ছবি দেখে আমি ব্যক্তিগতভাবে পুরোপুরি মুগ্ধ।

ছবিটি নির্মিত হয়েছে কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের বিখ্যাত মিসির আলি সিরিজের প্রথম উপন্যাস দেবী থেকে। যদিও আমি উপন্যাসটি পড়িনি। তারপরেও ছবি দেখে আমি তৃপ্ত।

‘নিকট অতীতে দেবীর চেয়ে দেশের কোনো সিনেমা এতো ভালো লাগেনি। আমার মধুমুতি হলে দেবী প্রদর্শিত হবে। দেবী প্রযোজনার জন্য জয়া আহসানকে ধন্যবাদ। তার বিসর্জন ছবি সেন্সর হয়েছে। দেবীর পর বিসর্জন মুক্তি পাবে। আমার বিশ্বাস দেবী সাফল্য পাবে, দর্শক গ্রহণ করবেন।’

এদিকে আগামী ১০ নভেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন শহরের প্রেক্ষাগৃহে ‘দেবী’ প্রদর্শনী হবে। শুরুতেই দেখা যাবে সিডনিতে। সিডনির অবার্নের রিডিং সিনেমায় ১০ নভেম্বর বেলা তিনটায় এবং ১১ নভেম্বর সন্ধ্যা ছয়টায় প্রদর্শিত হবে ‘দেবী’।

এরপর ১৭ নভেম্বর সিডনির ইস্ট গার্ডেন সন্ধ্যা ছয়টায় এবং পার্থের ক্যারোসেলের হোয়াটস সিনেমা হলে বেলা তিনটায়, ১৮ নভেম্বর অ্যাডিলেডের ওয়ালিস সিনেমায় সন্ধ্যা ছয়টায় দেখা যাবে ‘দেবী’ সিনেমাটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আইয়ুব বাচ্চুকে ছাড়া এলআরবির প্রথম কনসার্ট বুধবার

এলআরবি’র প্রাণ আইয়ুব বাচ্চু। কিংবদন্তি এই শিল্পী সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেছেন না ...

Skip to toolbar