সর্বশেষ সংবাদ
Home / আন্তর্জাতিক / সৌদি রাষ্ট্রদূতের বাসায় অভিযানে তুর্কি তদন্ত দল

সৌদি রাষ্ট্রদূতের বাসায় অভিযানে তুর্কি তদন্ত দল

সাংবাদিক জামাল খাশোগি নিখোঁজের ঘটনায় তল্লাশি চালাতে ইস্তাম্বুলে সৌদি রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে গেছেন তুর্কি তদন্ত দল।

তদন্ত কাজের অংশ হিসেবে দলটি রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আল-ওতাইবির বাসায় এ তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে বলে খবর দিয়েছে দেশটির প্রভাবশালী সংবাদ মাধ্যম ইয়ানি শাফাক।

তবে অভিযান শুরুর আগেই রাষ্ট্রদূত ওতাইবি তুর্কি ছেড়েছেন। বুধবার তুর্কি কর্তৃপক্ষ তার বাসভবন তল্লাশি করতে চাইলে তিনি দেশ ত্যাগ করেন বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসগ্লু মঙ্গলবার সকালে বলেছিলেন, তুর্কি তদন্ত দল সৌদি রাষ্ট্রদূতের বাসভবন তল্লাশি করতে চায়। কিন্তু ওই সময় সৌদি কর্তৃপক্ষ তাতে সম্মতি না দেয়া বুধবার এ তল্লাশি চালানো হয়।

উল্লেখ্য, দুই সপ্তাহ আগে তুরস্কের ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে শেষবারের মতো দেখা গিয়েছিল সৌদি সাংবাদিক খাশোগিকে।

তুরস্কের ধারণা, সৌদি আরবের রাজতন্ত্রের সমালোচক এ সাংবাদিককে সৌদি গুপ্তচররাই খুন করেছে। তবে সৌদি আরব এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

খাশোগি নিখোঁজের রহস্য উদ্ঘাটনের চেষ্টা চলছে। ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে এরই মধ্যে তল্লাশি হয়েছে। আরও ব্যাপক পরিসরে তল্লাশির উদ্যোগ নিচ্ছে তুরস্ক।

সৌদি আরব সোমবার ঘটনাটি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। খাশোগিকে কনস্যুলেট ভবনের ভেতরে হত্যা করার কথা স্বীকার করার বিষয়টি সৌদি আরব বিবেচনা করছে, এমন খবরও পাওয়া যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমগুলোতে।

এ পরিস্থিতিতেই সৌদি আরবে বৈঠক চালিয়ে যাচ্ছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী পম্পেও। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতর জানিয়েছে, পম্পেও খাশোগির ঘটনার পুঙ্খানুপুঙ্খ এবং স্বচ্ছ তদন্তের প্রতিশ্রুতি দেয়ার জন্য বাদশাহ সালমানকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

ওদিকে খাশোগির পরিবার তার অন্তর্ধানের ঘটনা তদন্তের জন্য একটি স্বাধীন আন্তর্জাতিক কমিশন গঠনের আবেদন জানিয়েছে।

পম্পেওর সঙ্গে বৈঠকে সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানও খাশোগির ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের প্রয়োজনীয়তার ব্যাপারে একমত পোষণ করেছেন।

খাশোগির বিষয়টি নিয়ে এর আগে সৌদি বাদশাহর সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এক ফোনালাপের পর পম্পেওকে সৌদি আরবে পাঠানো হয়েছে। এ সফরের পর তুরস্কে যাবেন তিনি।

ট্রাম্প এর আগে এক টুইটে বলেছিলেন- বাদশাহ সালমানের সঙ্গে তার কথা হয়েছে এবং বাদশাহ খাশোগির ব্যাপারে কিছু জানা থাকার কথা জোরালভাবে অস্বীকার করেছেন। তার কথা শুনে মনে হয়েছে, এ ঘটনায় দুর্বৃত্ত খুনিরা জড়িত থাকতে পারে।

তবে এর কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি তিনি। বিষয়টি সম্পর্কে বাদশাহর কাছ থেকে স্পষ্ট করে কিছু জানাটাও ছিল পম্পেওর সৌদি আরব সফরের উদ্দেশ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মুসলিম তরুণীর ‘মিস এশিয়া’ মুকুট জয়

৫০ বছরের মধ্যে এই প্রথম আন্তর্জাতিক সুন্দরী প্রতিযোগিতায় শরিফা আকিল নামে এক ...

Skip to toolbar