সর্বশেষ সংবাদ
Home / আন্তর্জাতিক / আস্থা ভোট, নেতৃত্বের পরীক্ষায় উতরে গেলেন তেরেসা মে

আস্থা ভোট, নেতৃত্বের পরীক্ষায় উতরে গেলেন তেরেসা মে

দলীয় নেতৃত্বের পরীক্ষায় আগামী এক বছরের জন্য টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে।

দেশটির ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির নেতৃত্বের আস্থা ভোটে তার পক্ষে পড়েছে ২০০টি। বিপরীতে ১১৭টি ভোট দলীয় পদে তাকে চায়নি। বুধবার দিবাগত রাতে এ ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মোট ভোটের ৬৩ শতাংশ নিশ্চিত করার পর নেতৃত্বের চ্যালেঞ্জ প্রশ্নে তিনি এখন নিরাপদ। তবে আস্থা ভোটে হেরে গেলে দলীয় পদ ও প্রধানমন্ত্রীত্ব ছাড়তে হতো এ টোরি নেতাকে।

এর পর ডাউনিং স্ট্রিটে দেয়া বক্তৃতায় তিনি বলেন, লোকজন যে জন্য ব্রেক্সিটের পক্ষে ভোট দিয়েছে, তিনি সেটিই করে যেতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। কিন্তু যেসব এমপি তার বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন, তাদের উদ্বেগের কথাও শুনতে চান তিনি।

তেরেসা মের সমর্থকরা দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

কিন্তু সমালোচকরা বলছেন, এক-তৃতীয়াংশ এমপির সমর্থন হারানো তার জন্য অবশ্যই বিপর্যয়কর।

আস্থা ভোটে তেরেসা মে সংখ্যাগরিষ্ঠ ৮৩ ভোটে জিতেছেন। ৩৭ শতাংশ ভোট পড়েছে তার বিপক্ষে।

গোপন ব্যালটের ভোটে দেখা যায় ৪৮ এমপি তার ব্রেক্সিট নীতি নিয়ে ক্ষুব্ধ। তারা বলছেন, ২০১৬ সালের গণভোটের ফলের সঙ্গে তিনি প্রতারণা করছেন।

বিবিসির সাংবাদিক লরা কোসেনবার্গ বলেন, একজন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তার জন্য বিরোধিতার মাত্রা স্বস্তিদায়ক নয়। তার কর্তৃত্বে এটি সত্যিকার অর্থে বড় আঘাত।

ভোটের ফল ঘোষণার পর সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় তেরেসা বলেন, বৃহস্পতিবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের সম্মেলনে তিনি ব্রেক্সিট চুক্তির জন্য লড়াই করবেন।

তিনি বলেন, সহকর্মীদের কাছ থেকে সমর্থন পেয়ে আমি খুবই সন্তুষ্ট। একটি বড়সংখ্যক সমর্থন আমার বিরুদ্ধে পড়েছে। তবে আমি তাদের কথা শুনব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ইরানে গৃহযুদ্ধ লাগাতে চায় যুক্তরাষ্ট্র: খামিনেই

ইরানে একটি গৃহযুদ্ধ লাগিয়ে দিতে চায় যুক্তরাষ্ট্র বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির সর্বোচ্চ ...

Skip to toolbar