করোনাকালেও প্রধানমন্ত্রী দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, শেখ হাসিনা সেদিন বেঁচে ছিলেন বলেই আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করতে পেরেছিলেন এবং দেশের প্রতিটি সেক্টরে আজ উন্নয়নের জোয়ার বইছে। তার নেতৃত্বেই দেশ ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিণত হবে। মন্ত্রী সবাইকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশকে গড়ে তুলতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।

শনিবার (৩ অক্টোবর) বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদ এবং বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা কৃষিবিদ পরিষদ এর যৌথ উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি হলরুমে অনুষ্ঠিত জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে ‘পুষ্টিসম্মত ও নিরাপদ খাদ্যের নিশ্চয়তা প্রদানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার, দেশের সকল অনাবাদি জমিতে করতে হবে ফসল চাষাবাদ এবং জননেত্রী শেখ হাসিনা সম্মাননা পদক ২০২০’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, এই করোনাকালেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। শেখ হাসিনা সরকার আছে বলেই এই করোনাকালে দেশের একটি মানুষও না খেয়ে মারা যায়নি। এই কোভিড-১৯ এর সময়েও দেশে খাদ্যের অভাব হয়নি, দেশে পর্যাপ্ত খাদ্য মজুদ আছে।

মন্ত্রী আরো বলেন, কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। একটা সময় কৃষক তার ফসলের ন্যায্যমূল্য পায়নি, ফলে কৃষক ধান উৎপাদন থেকে বিমুখ হয়ে পড়েছিল। সেখান থেকে প্রধানমন্ত্রীর সঠিক দিকনির্দেশনায় কাজ করতে পেরেছি বলেই কৃষকের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত হয়েছে এবং কৃষক ফসলের ন্যায্যমূল্য পেয়েছে।

খাদ্যমন্ত্রী আক্ষেপ করে বলেন, কিছু কিছু মিলার ধান অবৈধ মজুদ করে রেখেছে। ইতোমধ্যেই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কিছু কিছু জায়গায় এই সমস্ত মজুদকৃত ধান বাজেয়াপ্ত করেছে এবং তাদের বিভিন্ন জরিমানা করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে এবার খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ভিজিএফ এর আওতায় দেশের ১০০টি উপজেলায় পুষ্টি চাল বিতরণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকঃ শারমিন আক্তার, প্রকাশকঃ মোঃ এনামুল হক, হুজাইফা এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড কর্তৃক চৌধুরী মল ৪৩, শহীদ নজরুল ইসলাম সড়ক (হাটখোলা রোড), টিকাটুলি, ঢাকা-১২০৩ হতে প্রকাশিত। ফোন-ফ্যাক্স: ৭১২৫৩৮৬। । ই-মেইল: tatkhonik@gmail.com