করোনা: এক বছরের বেতন দান করলেন একতা

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ভারতে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। এই সময় বন্ধ রাখা হয়েছে সিনেমা ও টিভি ধারাবাহিকের শুটিং। এতে করে বেকার হয়ে পড়েছেন দৈনিক আয়ের ভিত্তিতে কাজ করা মানুষেরা।

ভারতীয় টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির এরকম খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন নির্মাতা এবং ‘বালাজি টেলিফিল্মসের’ জয়েন্ট ম্যানেজিং ডিরেকটর ও ক্রিয়েটিভ হেড একতা কাপুর। এজন্য নিজের এক বছরের বেতন দান করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে একতা লিখেছেন, ‘করোনার প্রভাবে অনেক বড় সংকট তৈরি হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে এমন কিছু করা উচিত যাতে করে আমাদের চারপাশের এবং বৃহৎ পরিসরে দেশের মানুষের কষ্ট লাঘব হবে। এই মুহূর্তে আমার প্রধান দায়িত্ব ও কর্তব্য বালাজি টেলিফিল্মসের হয়ে যারা কাজ করেন সেই সকল দৈনিক আয়ের কলাকুশলীদের পাশে দাঁড়ানো। কারণ শুটিং বন্ধ থাকায় তারা অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন এবং অনিশ্চয়তার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। তাদের কল্যাণের জন্য বালাজি টেলিফিল্মসে আমার এক বছরের বেতন ২.৫ কোটি রুপি দান করছি, যাতে আমার সহকর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত না হন এবং লকডাউন সম্পূর্ণ করতে পারেন।’

বলিউডের অনেক তারকা ইতোমধ্যে ইন্ডাস্ট্রির খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। ২৫ হাজার দিন মজুর সিনেমাকর্মীর খাওয়া ও আর্থিক সাহায্যের দায়িত্ব নিয়েছেন সালমান খান। নির্মাতা রোহিত শেঠি ও অভিনেতা অজয় দেবগন ফেডারেশন অব ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনে এমপ্লোয়িস সংঘে ৫১ লাখ রুপি দান করেছেন। এছাড়া লকডাউনের কারণে বেকার হয়ে পড়া ১৫ হাজার সিনেমাকর্মীর পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলিউডের প্রথম সারির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান যশরাজ ফিল্মস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকঃ শারমিন আক্তার, প্রকাশকঃ মোঃ এনামুল হক, হুজাইফা এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড কর্তৃক চৌধুরী মল ৪৩, শহীদ নজরুল ইসলাম সড়ক (হাটখোলা রোড), টিকাটুলি, ঢাকা-১২০৩ হতে প্রকাশিত। ফোন-ফ্যাক্স: ৭১২৫৩৮৬। । ই-মেইল: tatkhonik@gmail.com