বঙ্গবন্ধুর সহ-বন্দি হেলালের পরিবারের মানবতার জীবনযাপন

বঙ্গবন্ধু যখন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি ছিলেন তখন সেই কারাগারের মেটের দায়িত্বে ছিল যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী হেলাল খান। স্বৈরশাসকরা যখন বঙ্গবন্ধুকে বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন করতো তখন হেলাল খা বঙ্গবন্ধুর কষ্ট লাগবের জন্য কৌশল অবলম্বন, বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন ফরমায়েশ তামিল করে তাকে সেবা করতো। বঙ্গবন্ধু তাকে বলেছিলেন আমি মুক্তি পেলে কারাগারের বাইরে যদি আমাদের সাক্ষাৎ হয় তবে তোমার জন্য কিছু করতে চেষ্টা করব।

হেলাল খার পরিবার সূত্রে জানা যায়, পরে বঙ্গবন্ধু যখন নেত্রকোণার কলেজ মাঠে এক সমাবেশে বক্তব্য দিচ্ছিলেন তখন সেবক হেলাল খাঁকে দেখতে পেয়ে কাছে ডেকে নিয়ে বুকে জড়িয়ে ধরলেন। হেলাল মারা যাওয়ার পর পরিবারটি অসহায় হয়ে পড়ে, সন্তানাদি নিয়ে হেলাল খার স্ত্রী অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নেয়।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে হেলাল খানের বিধবা স্ত্রী রাবেয়া খাতুন মিনতি করছেন, যেন তাদের প্রতি সুদৃষ্টি দেওয়া হয়।

হেলাল উদ্দিন খার বড় ছেলে হালিম খা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি, পিতার মৃত্যুর পর আমাদের জমি সম্পত্তি অন্যরা ভোগ দখল করছে আমরা সমাজে অবহেলিত জীবনযাপন করছি, আমরা সমাজে মাথা উঁচু করে যেন বেঁচে থাকতে পারি এমন একটি ব্যবস্থা যেন তিনি করে দেন।

মরহুম হেলাল খাঁর বিষয়ে জানতে চাইলে সাবেক নেত্রকোণা সদর উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আইয়ুব আলীসহ অনেক প্রবীণ ব্যাক্তিবর্গ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকঃ শারমিন আক্তার, প্রকাশকঃ মোঃ এনামুল হক, হুজাইফা এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড কর্তৃক চৌধুরী মল ৪৩, শহীদ নজরুল ইসলাম সড়ক (হাটখোলা রোড), টিকাটুলি, ঢাকা-১২০৩ হতে প্রকাশিত। ফোন-ফ্যাক্স: ৭১২৫৩৮৬। । ই-মেইল: tatkhonik@gmail.com