বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রীকে বিসিকের সাধুবাদ

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশের সম্ভাব্য অর্থনৈতিক ক্ষতি মোকাবিলায় ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার ৫টি প্যাকেজ ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সাধুবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক)।

রোববার (০৫ এপ্রিল) বিসিকের পক্ষ থেকে সহ-সভাপতি হোসেন এ সিকদার এক প্রতিক্রিয়ায় এ সাধুবাদ জানান। একই সঙ্গে আরো কিছু দাবি জানিয়েছে বিসিক।

বিসিক বলছে, বিশ্বব‌্যাপী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে স্বাভাবিক জীবন-যাপন থেকে শুরু করে ব্যবসা-বাণিজ্য, আমদানি-রপ্তানি, শিল্পোৎপাদনসহ সামগ্রিক অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড স্থবির হয়ে পড়ছে। বিসিকের অধীন ৭৬টি শিল্প এলাকার প্রতিটি কারখানা বর্তমানে বন্ধ রয়েছে।

এ বিষয়ে হোসেন এ সিকদার বলেন, দেশের সব বিসিক শিল্প এলাকার কারখানায় দক্ষ, অর্ধ-দক্ষ, অদক্ষ মিলিয়ে প্রায় ৫ লাখ ৯০ হাজার ৬২০ জন শ্রমিক-কর্মচারী কর্মরত আছেন। আর এসব শিল্প কল-কারখানায় শিল্প মালিকদের প্রায় ২৭ হাজার ৬৮৯ কোটি টাকার আর্থিক বিনিয়োগ রয়েছে। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশব‌্যাপী লকডাউন থাকায় বিসিক শিল্প এলাকায় বর্তমানে সব উৎপাদনমুখী কল-কারখানা বন্ধ রয়েছে। যার ফলে এ বিশাল অংকের বিনিয়োগ আজ হুমকির মুখে পড়েছে।

তিনি বলেন, বিসিক শিল্প এলাকার কারখানাগুলো মূলত স্থানীয় বাজার নির্ভর। কাঁচামালের সরবরাহ না থাকায় উৎপাদন, স্থানীয় বাজারে বিপণন, সরবরাহ, রপ্তানি কার্যক্রম এখন বন্ধ রয়েছে। উৎপাদন বন্ধ থাকায় কিছুদিন পর শ্রমিকদের বেতন, বোনাস দেওয়া শিল্প মালিকদের জন্য অত্যন্ত কষ্টসাধ্য হয়ে পড়বে। তাছাড়া রমজান ও ঈদ-উল-ফিতর আসন্ন। তবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশের সম্ভাব্য অর্থনৈতিক ক্ষতি মোকাবিলায় ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার ৫টি প্যাকেজ ঘোষণা করায় বাংলাদেশ বিসিক শিল্প মালিক সমিতির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানানো হয়।

একই সঙ্গে বিসিক শিল্প এলাকার কারখানার পানির বিল আগামী ৬ মাস মওকুফ, প্রতি মাসের বিদুৎ ও গ্যাস বিল পরবর্তী ৬ মাস ৩টি সম-বিভাজিত কিস্তিতে পরিশোধের সুযোগ দেওয়া এবং প্রতিটি শিল্প প্লটের নির্ধারিত সার্ভিস চার্জ মওকুফ ও প্লটের কিস্তি আগামী ১ বছরের জন্য স্থগিত রাখতে সরকারের কাছে আহ্বান জানানো হয়েছে।

পাশাপাশি বিসিক শিল্পনগরীতে স্থাপিত নতুন শিল্প কারখানা এবং বিএমআরই (ব্যালেন্সিং, আধুনিকায়ন, বিস্তার এবং প্রতিস্থাপন) শিল্প ইউনিটের মূলধনী যন্ত্রপাতি ক্রয়ের জন্য গৃহিত ঋণসহ অন্যান্য ঋণের সুদ আগামী ৬ মাসের জন্য মওকুফ করতে সুপারিশ করা হয়।

এ বিষয়ে হোসেন এ সিকদার বলেন, ছোট ছোট এ শিল্পগুলো আমাদের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। অর্থনীতি সুরক্ষায় শিল্প রক্ষার বিকল্প নেই। স্থানীয় বাজারের যোগান, আমদানি-বিকল্প পণ্য উৎপাদন, রপ্তানি বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও ব‌্যাকওয়ার্ড লিংকেজ শিল্পকে চলমান দুঃসময়ের হাত থেকে রক্ষায় সরকার ইতিবাচক পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে আশা প্রকাশ করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকঃ শারমিন আক্তার, প্রকাশকঃ মোঃ এনামুল হক, হুজাইফা এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড কর্তৃক চৌধুরী মল ৪৩, শহীদ নজরুল ইসলাম সড়ক (হাটখোলা রোড), টিকাটুলি, ঢাকা-১২০৩ হতে প্রকাশিত। ফোন-ফ্যাক্স: ৭১২৫৩৮৬। । ই-মেইল: tatkhonik@gmail.com