মাদক মামলায় আগের দিন আসামির জামিন মঞ্জুর, পরদিন বাতিল

৯ হাজার পিচ ইয়াবা ও ১০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধারের মামলায় এনায়েতুল্লাহ নামে এক আসামির জামিন মঞ্জুরের পরদিনই তা বাতিল করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ এবং ভার্চুয়াল কোর্টের বিচারক আল আসাদ মোহাম্মদ আসিফুজ্জামান রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে জামিন বাতিলের আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতের অ‌্যাডিশনাল পাবলিক প্রসিকিউটর মঞ্জুর মওলা চৌধুরী বিষয়টি রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বুধবার (১৭ জুন) আসামির পক্ষে তার আইনজীবী জামিন শুনানি করেন। তিনি রাষ্ট্রপক্ষকে এ বিষয়ে অবহিত করেননি। তাছাড়া তারা আদালতকে জানিয়েছে আসামি অসুস্থ। কিন্তু সে মর্মে কোনো কাগজপত্র দাখিল করেনি। এ অবস্থায় আমরা আসামির জামিন বাতিলের আবেদন করি। শুনানি শেষে আদালত আসামির জামিন বাতিলের আদেশ দেন।

এর আগে বুধবার এনায়েতুল্লাহর পক্ষে জামিন শুনানিতে তার আইনজীবী আকবর হোসেন আদালতকে বলেন, আসামি দীর্ঘদিন ধরে কারাগারে আছেন। তিনি অসুস্থ হয়ে করোনাভাইরাসে সংক্রমণের আশঙ্কায় রয়েছেন। এজন‌্য জামিন প্রার্থনা করেন আইনজীবী। তবে এসময় রাষ্ট্রপক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না।

আসামি পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক আদেশে উল্লেখ করেন, মামলাটিতে এ আসামিসহ ৬ জনকে অভিযুক্ত করে ২০১৮ সালের ১১ আগস্ট আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়। এর আগে একই বছরের ১৯ মে আসামিদের আটক করা হয়। এ আসামির বিরুদ্ধে ইয়াবা ও হেরোইন রাখার অভিযোগ রয়েছে। এজাহারে হেরোইন উদ্ধারের পরিমাণ আনুমানিক বলে উল্লেখ আছে। চার্জশিটে আসামির বিরুদ্ধে আগে কোনো অপরাধের বিবরণ নেই। মামলার অপর ৫ আসামি এরইমধ্যে বিভিন্ন আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। আসামি দুই বছরের বেশি সময় কারাগারে রয়েছেন। আইনজীবী উল্লেখ করেছেন, আসামি অসুস্থ হয়ে করোনাভাইরাসে সংক্রমণের আশঙ্কায় রয়েছেন। দীর্ঘ হাজতবাস এবং মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে মামলার পরবর্তী বিচার অনিশ্চিত বিবেচনায় আসামির জামিন মঞ্জুর করা হলো।

এদিকে আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত ১০ জুন একই আদালতে জামিন আবেদন করেন এই আসামি। ওই দিন আদালত তার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেন।

২০১৮ সালের ১৯ মে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকা থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবা এবং ১০০ গ্রাম হেরোইনসহ ছয় আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। একই বছরের ১১ আগস্ট আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করা হয়। চার্জশিটভুক্ত অপর আসামিদের মধ্যে রয়েছেন-সজীব মিয়া, সাধন রাজবংশী, আজমল ব্যাপারি। বর্তমানে মামলাটি যুক্তিতর্ক শুনানির পর্যায়ে রয়েছে।

জানা যায়, চার্জশিটভুক্ত ৬ আসামির মধ্যে এনায়েতুল্লাহর কাছ থেকেই ৯ হাজার পিচ ইয়াবা এবং ১০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করে পুলিশ। অপর পাঁচ আসামির কাছ থেকে এক হাজার পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকঃ শারমিন আক্তার, প্রকাশকঃ মোঃ এনামুল হক, হুজাইফা এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড কর্তৃক চৌধুরী মল ৪৩, শহীদ নজরুল ইসলাম সড়ক (হাটখোলা রোড), টিকাটুলি, ঢাকা-১২০৩ হতে প্রকাশিত। ফোন-ফ্যাক্স: ৭১২৫৩৮৬। । ই-মেইল: tatkhonik@gmail.com