সরকারি সহায়তা প্রকৃত ভুক্তভোগীদের দিন: সিপিবি

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারের সহায়তা যেন প্রকৃত ভুক্তভোগীরা পান, তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছে সিপিবি ঢাকা কমিটি।

সোমবার (১৩ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে ঢাকা কমিটির সভাপতি কমরেড মোসলেহ উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাজেদুল হক রুবেল এ দাবি জানান।

নেতারা বলেন, সাধারন ছুটির ১৯তম দিন চলে যাচ্ছে। দীর্ঘ এ সময়ে সাধারণ মানুষ, যারা দিন আনে দিন খান, তাদের জীবন ক্রমশ দুর্বিষহ হয়ে ওঠেছে। ইতিপূর্বে ঘোষিত রপ্তানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানসমূহের শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করার জন্য ৫ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজসহ প্রধানমন্ত্রী ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, যেখানে বড় শিল্প ও সার্ভিস সেক্টরের প্রতিষ্ঠানসমূহকে ৩০ হাজার কোটি টাকা এবং ক্ষুদ্র-কুটির ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠানসমূহকে ২০ হাজার কোটি টাকা শতকরা ৯ শতাংশ সুদে ঋণ দেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। সরকার এই শতকরা ৯ শতাংশ সুদের ভেতর বড় শিল্পে ৪ দশমিক ৫০ শতাংশ এবং ক্ষুদ্র-কুটির ও মাঝারি শিল্পে শতকরা ৫ শতাংশ ভর্তুকি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। অন্যদিকে ক্ষুদ্র ও মাঝারি চাষিদের জন্য শতকরা ৫ শতাংশ সুদে ৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। কৃষিতে ঘোষিত এ প্রণোদনা পর্যাপ্ত নয়।

বিবৃতিতে নেতারা দাবি করেন, করোনা পরবর্তী সময়ে খাদ্য সংকটের আশঙ্কা মোকাবিলায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষী, সবজি চাষী, ছোট ও মাঝারি পোল্ট্রি, মৎস্য ও গবাদিপশু খামারীদের কাছে সরাসরি প্রণোদনার অর্থ পৌঁছানোর ব্যবস্থা করতে হবে। বিনা সুদে অর্থ সহযোগিতা দিতে হবে। কৃষিক্ষেত্রে প্রণোদনার পরিমাণ ৫ হাজার কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার কোটি টাকা করতে হবে।

নেতারা করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সকল ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সবাইকে সম্মিলিত প্রচেষ্টার আহ্বান জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকঃ শারমিন আক্তার, প্রকাশকঃ মোঃ এনামুল হক, হুজাইফা এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড কর্তৃক চৌধুরী মল ৪৩, শহীদ নজরুল ইসলাম সড়ক (হাটখোলা রোড), টিকাটুলি, ঢাকা-১২০৩ হতে প্রকাশিত। ফোন-ফ্যাক্স: ৭১২৫৩৮৬। । ই-মেইল: tatkhonik@gmail.com